সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
সশস্ত্র বাহিনীর শহীদদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা নিবেদন। লবঙ্গের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা জেনে নিন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী অপপ্রচারের জবাব দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবান-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ চলে গেলেন না ফেরার দেশে কুমিল্লার বর্ষীয়ান নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ এডভোকেট আফজল খান। আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ চলে গেলন না ফেরার দেশে স্বর্গীয় পালক মি. পল পন্ডিত-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ ডেলিভারিতে সিজার বৃদ্ধির কারণ জেনে নিন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী। ” প্রচেষ্টা সামাজিক সংগঠনের ” আহবায়ক কমিটি ঘোষণা সংখ্যালঘুদের উপরে হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল। মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচীতে উত্তাল কুমিল্লা।

আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-ওয়ার্ল্ড খবর২৪

রির্পোটারের নাম / ৩৩ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২১

আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস

সোজা কথায় বলতে গেলে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যাওয়াকে ডায়াবেটিস বলে। একে নীরব ঘাতকও বলা হয়। ডায়বেটিস এমন একটা রোগ যে রোগে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ ধীরে ধীরে ক্ষতিগ্রস্ত হতে থাকে। যার ফলে এক সময় মৃত্যু পর্যন্তও হতে পারে। সাধারণত ডায়বেটিস সকলের শরীরে থাকে। কারোর শরীরে কম, আবার কারোর শরীরে বেশি পরিমানে থাকে। সাধারণত মধ্য বয়ষ্ক ও বৃদ্ধ ব্যক্তিরা ডায়াবেটিসে বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে। সন্তানসম্ভবা হলে অনেক নারী ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে থাকে।সেই মহিলার শরীর থেকে প্রয়োজনীয় ইনসুলিন তৈরি হয় না। তখন মা ও বাচ্চার ডায়বেটিস হয়ে থাকে। এর ফলে কিছু শিশুরা জন্মগতভাবে ডায়বেটিস রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

ডায়বেটিস এর কিছু লক্ষণ নিচে দেওয়া হলোঃ-
১. খুব তৃষ্ণা পাওয়া।
২.ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া, বিশেষ করে রাতের বেলায়।
৩.ক্লান্ত বোধ করা।
৪. ওজন কমে যাওয়া।
৫. চোখের দৃষ্টি ঝাপসা হওয়া।
৬. বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়া।
৭. শরীরের কোথায় কেটে গেলে,শুকাতে দেরি হওয়া ইত্যাদি।

একটা সমীক্ষায় দেখা গেছে ডায়বেটিসে প্রতি বছর ১৩ লক্ষের বেশি মানুষ মারা যায়।২০২১ সালে ডায়াবেটিস আক্রান্ত হয়ে ৬.৭ মিলিয়ন মানুষ মারা গেছে পৃথিবীতে। ২০১৪ সালের সমীক্ষায় দেখা গেছে পৃথিবীতে ১৪ কোটির বেশি আক্রান্ত হয়েছে ডায়বেটিসে। যা দিন দিন বেড়েই চলছে ডায়বেটিস আক্রান্তের সংখ্যা। বয়স ৪০ হওয়ার পর থেকে ডায়বেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়। তবে দক্ষিণ এশিয়ার লোকজনের মধ্যে ২৫ বছর হওয়ার পর ডায়বেটিস হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। ডায়বেটিস যদিও জেনেটিক সমস্যা। যাদের মা-বাবা, ভাই-বোন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে থাকে, সেই পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও ডায়বেটিস হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

ডায়বেটিস থেকে প্রতিকারের উপায়ঃ-
১. ভাত খাওয়া প্রায় ছেড়ে দিতে হবে।
২. আটার রুটি খেতে হবে।
৩. হোয়াইট পাস্তা, ড্রিংকস, চিনি জাতীয় পানীয়, মিষ্টি ইত্যাদি ছেড়ে দিতে হবে।
৪. স্বাস্থ্যকর শাকসবজি খেতে হবে।
৫. এক বেলা পেট ভরে না খেয়ে অল্প অল্প করে বিরতি দিয়ে খেতে হবে।
৬. শরীর চর্চা করতে হবে। ফলে শর্করার মাত্রা কমে যাবে।
৭. প্রতিনিয়ত ব্যায়াম করতে হবে।এর মধ্যে দ্রুত হাঁটা। সিঁড়ি দিয়ে উঠা নামা করা।
৮. ধূমপান পরিহার করা ইত্যাদি আরো অনেক কিছু।

শরীরের শর্করার পরিমাণ যদি খুব বেড়ে যায় তাহলে রক্ত ঠিকমতো চলাচল করতে পারবে না। ফলে স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে যে অন্ধত্ব, কিডনি নষ্ট হওয়া, হার্ট অ্যাটাক হওয়া ও স্ট্রোক ইত্যাদি হয়ে থাকে ডায়বেটিস এর কারনে।
তাই সকলে ডাক্তারের পরামর্শ মেনে চলাচল করুন, সাবধানে থাকুন,জীবন সুস্থ রাখুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com