শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২১ পূর্বাহ্ন
Logo

আজ বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শুভ জন্মদিন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৩৬ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ৮ মে, ২০২১

আজ ২৫ বৈশাখ। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শুভ জন্মদিন-♥

তিনি ছিলেন কাব্য, গীত, কথাসাহিত্য তো বটেই, বাঙালি সত্তা ও সংস্কৃতির মহানায়ক।
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৬০ বছর আগে অথ্যাৎ ১২৬৮ বঙ্গাব্দের ২৫ বৈশাখ কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়ি জন্ম নেন বাংলা সাহিত্যের এই প্রবাদপুরুষ।

কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ, উপন্যাস, নাটক, নৃত্যনাট্য— যেখানেই হাত দিয়েছেন,সেখানো সোনা ফলেছে তার জীবনে।
৫২টি কাব্যগ্রন্থ, ৩৮টি নাটক, ১৩টি উপন্যাস ও ৩৬টি প্রবন্ধ ও অন্যান্য গদ্যসংকলন বলছে— আজীবন দু’হাত ভরে লিখে গেছেন রবীন্দ্রনাথ। এর বাইরে তার চিঠিপত্র, ভ্রমণ কাহিনীর সংকলনও বাংলা সাহিত্যের আকর গ্রন্থ হিসেবে সমাদৃত। আর এসবের মাধ্যমেই বাংলা ভাষা ও সাহিত্যকে তিনি পৌঁছে দিয়েছেন অনন্য উচ্চতায়। বিশ্ব সাহিত্যের দরবারে বাংলাকে প্রতিষ্ঠিত করে জয় করেছেন নোবেল পুরস্কার। বাঙালির কাছে হয়ে উঠেছেন গুরুদেব, কবিগুরু, বিশ্বকবি।

বিশ্বকবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুরের শুভ জন্মদিনে তার সংক্ষিপ্ত বিবরণ আমরা পড়তে চাই,যেন তা পড়ে আমরা আমাদের জীবনের কিছুটা হলেও পরিবর্তন করতে পারি।

জন্ম ও বংশ পরিচয়:
তিনি কলকাতার জোড়াসাঁকোর বিখ্যাত ঠাকুর পরিবারে ১২৬৮ বঙ্গাব্দের ২৫ বৈশাখ জন্মগ্রহণ করেন।

বাল্যকাল ও শিক্ষা:
শৈশবে গৃহশিক্ষকের কাছে বিভিন্ন বিষয়ে তাঁর লেখাপড়ার হাতেখড়ি হয়। এরপর তিনি কলকাতা নর্মাল স্কুলে ভর্তি হন। তিনি পড়াশোনার জন্য ১৭ বছর বয়সে বিলাত যান। সেখানে ব্রাইটন পাবলিক স্কুল ও লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়েপড়াশোনা করেন।

সাহিত্যকর্ম ও সাধনা:
মাত্র ১৪ বছর বয়সে তাঁর প্রথম কবিতার বই বনফুল প্রকাশিত হয়। দীর্ঘ সাহিত্য জীবনে তিনি অসংখ্য কবিতা, গান, উপন্যাস ও প্রবন্ধ রচনা করেন। তাঁর বিখ্যাত কাব্যগ্রন্থ হলো মানসী, সোনার তরী, চিত্রা, চৈতালী। তাঁর বিখ্যাত নাটক হলো ডাকঘর, বিসর্জন, রক্তকরবী, অচলায়তন। তাঁর বিখ্যাত উপন্যাস হলো গোরা, নৌকাডুবি, শেষের কবিতা, চোখের বালি। তাঁর রচিত গানের সংখ্যা প্রায় আড়াই হাজার।

নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্তি:
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থের জন্য ১৯১৩ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। এশীয়দের মধ্যে প্রথম সাহিত্যিক হিসেবে তিনি এ পুরস্কারটি লাভ করেন ।


সমাজসেবা ও দেশপ্রেম:
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বোলপুরে ‘শান্তিনিকেতন’ নামক একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করেন। তাঁর প্রতিষ্ঠিত বিশ্বভারতী এখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হয়েছে। পাঞ্জাবের জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে তিনি ‘নাইট’ উপাধি বর্জন করে নিবিড় দেশপ্রেমের পরিচয় দেন।

মৃত্যু:
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৩৪৮ বঙ্গাব্দের ২২ শ্রাবণ মারা যান।

আজ এই মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে কোন অনুষ্ঠান করা হচ্ছে না।তথাপি আমরা আমাদের হৃদয়ে ধারণ করতে চাই তার সকল কর্ম সাফল্যতা।
এই মহাপুরুষের জন্ম না হলে হয়তো বা অনেক পিছিয়ে থাকতে হতো জাতীকে।

আমরা এই দূর্যোগ মুহূর্তে যে যার অবস্থান থেকেই রবী ঠিকুরকে একে অন্যের কাছে প্রকাশ করি।
সবাই ঘরে থাকি, সুস্থ থাকি,
স্বাস্থ্য মন্ত্রালয়ের নিয়ম-কানুন মেনে চলি।
ঘর থেকে বের হওয়ার পূর্বে মাস্ক নিয়ে বের হউন ও মাস্ক পরুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com