শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
নভেম্বরের ১৫ তারিখ থেকে সীমিত পরিসরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন -শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম ও তার পরিবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ২.৮ লাখ শিক্ষার্থীর গ্রেডিং অনিশ্চয়তায়। জীবনকে সুন্দর করে গড়ে তোলার নিয়ম-কানুন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বেতন নির্ধারণে নীতিমালা করতে কমিটি। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের পোস্ট দিতে পারবেন না কলেজের ছাত্র–শিক্ষকেরা-ওয়ার্ল্ড খবর২৪.। ভয়াল মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে এবারের উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) বা সমমানের পরীক্ষা হবে না।শিক্ষামন্ত্রী। নারী সম্পর্কে সচেতন হতে হবে সমস্ত জাতীকে-ওয়ার্ল্ড খবর

ভয়ঙ্কর রূপ নিচ্ছে কুমিল্লা জেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী।

ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী / ২৮৮ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ৩১ মে, ২০২০

কুমিল্লায় আস্তে আস্তে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সংখ্যা ক্রমেই হু হু করে রেড়ে চলছে।
কুমিল্লায় আজ রবিবার (৩১ মে ২০২০খ্রী:) করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড ছড়িয়ে ১০৪ জন পৌচ্ছালো।
এই পর্যন্ত কুমিল্লায় করোনা ভাইরাসে সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭৫ জনে।
আজ কুমিল্লায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরও ২ জন।
এই দুই জনের মৃতদের মধ্যে সিটি কর্পোরেশনের একজন ও লালমাইয়ের একজন। জেলায় এই পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ২৬ জনে।

আজ কুমিল্লা সিভিল সার্জন কার্যালের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী করোনার খবর নিম্নে দেওয়া হলো-

এভাবে যদি করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা বড়তেই থাকে তা হলে কুমিল্লা জেলার অবস্থা কি হবে?
আমরা যদি একটু রাস্তা ঘাট,বাজার সহ সব জায়গায় লক্ষ করি তা হলে দেখতে পাবো সর্বস্তরেই মানুষ আর মানুষ,তা প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে।

মাস্ক না পরে বাহিরে বের হলে ৬ মাস জেল অথবা এক লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হওয়া সংক্রান্ত আদেশ।


জানিনা এই সংক্রমণ করোনা ভাইরাস কার শরীরে বহন করে আছে,এবং তার সংস্পর্শে এসে যে কেউ বয়ে নিয়ে যাবে বাসায়,আর তা ছড়িয়ে পড়বে বাসার সবার।

আজ কান্দির সমবায় মার্কেট থেকে এক ব্যবসায়ী মি.ডেভিড পি বিশ্বাস ফোনে জানান কান্দিরপারের খবর।
সে জানায় যে,মানুষ মার্কটে এসে কেউ নিয়ন-কানুন মেনে মার্কেট করছে না।একে অপরের সাথে দূরত্ব বাজায় রাখছে না।
মনে হয় আগের মতোই স্বাধীন। এই স্বাধীনতার কারণে হয়তো সামনে করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা বাড়ার সম্ভবনা বেশি।
তাই সবার মুখে মাস্ক,হাতে গ্লাভস সহ দূরত্বব বাজায় রেখে প্রয়োজনে বাজার সহ সব কিছু করলে হয়তো বা করোনার সংক্রমণ কম হতে পারে।
কুমিল্লার অটো গুলোর দিকে লক্ষ করলে দেখা যায় যে,স্বস্থ্য সম্মত ভাবে, দূরত্ব বজায় রেখে কেউ বসছে না সিটে।
এভাবে প্রতিটি ক্ষেত্র এই অনিয়মের জন্যই আজ বেড়েই চলছে করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত সংখ্যা।
তাই আজ সময় এসেছে, কথায় নয়,কাজে প্রমান করতে হবে, করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা কমতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com