বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫৮ অপরাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
হোমিওপ্যাথি সেবা সংঘের” নতুন কমিটি পুনরায় গঠন করা হল-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ গত ০৭-০১-২০২২ তারিখে হোমিওপ্যাথি সেবা সংঘের ফ্রি চিকিৎসা-Worldkhobor24 ০৭-০১-২০২২ খ্রীষ্টাব্দে হোমিওপ্যাথি সেবা সংঘের উদ্দ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ সশস্ত্র বাহিনীর শহীদদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা নিবেদন। লবঙ্গের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা জেনে নিন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী অপপ্রচারের জবাব দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবান-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ চলে গেলেন না ফেরার দেশে কুমিল্লার বর্ষীয়ান নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ এডভোকেট আফজল খান। আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ চলে গেলন না ফেরার দেশে স্বর্গীয় পালক মি. পল পন্ডিত-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ ডেলিভারিতে সিজার বৃদ্ধির কারণ জেনে নিন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী।

১৫ মে – বিশ্ব পরিবার দিবস।

আয়েশা সিদিকা / ২৮৬ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ১৫ মে, ২০২১

১৫ মে আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস। ১৯৯৩ সালের ২০ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রসংঘ সাধারণ পরিষদের এক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৫ মে আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস হিসেবে ঘোষিত হয়। রাষ্ট্রসংঘ ১৯৯৪ সালকে আন্তর্জাতিক পরিবার বর্ষ ঘোষণা করেছিল।

নৃবিজ্ঞানী ম্যালিনোস্কির মতে – “পরিবার হল একটি গোষ্ঠী বা সংগঠন আর বিবাহ হল সন্তান উৎপাদন ও পালনের একটি চুক্তি মাত্র”। সামনার ও কেলারের মতে- ‘পরিবার হল ক্ষুদ্র সামাজিক সংগঠন, যা কমপক্ষে দু’ পুরুষকাল পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে”- এ সংজ্ঞার প্রেক্ষিতে বোঝা যায়, বিবাহপ্রথার আগেও সমাজে পরিবারের সৃষ্টি হয়েছিল- কারণ এ সম্পর্কে আবদ্ধ হওয়ার আগে থেকেই মানুষ দলবদ্ধ জীবনযাত্রা করত যা পারিবারিক জীবনযাপনের স্বাক্ষরবহ। সমাজবিজ্ঞানী ফলসমের মতে ‘একক’ পরিবারের অন্যতম তিনটি কারণ যেমন স্ত্রী ও পুরুষ উভয়েরই প্রয়োজন ও চাহিদা সম্পর্কে সচেতনতা, অলাভজনক শিশুশ্রম এবং জন্ম নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে ব্যাপক প্রচার। এরই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আর্থিক অনটন, ব্যক্তিত্বের সংঘাত এবং ব্যক্তি স্বাতন্ত্র্যবাদের উন্মেষ।

প্রতিটা মানুষের কাছে পরিবার খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। পরিবার ছাড়া মানুষ অসহায় হয়ে যায়, একাকীত্ব অনুভব করে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে পরিবারের বিকল্প কিছু হতে পারে না। আপনি যখন বিপদে পরবেন, তখন আপনার পাশে বন্ধু বান্ধব, আত্মীয় স্বজনও দূরে চলে যাবে। কিন্তু পরিবার সবসময় পাশে থাকবে। সব দিক থেকে পরিবারের মানুষরা সাপোর্ট দিয়ে রাখবে। সবাই আগলে রাখবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কারোর সাথে ভালো বন্ধুত্ব করার পর পরিবারের সাথে সম্পর্ক নষ্ট করার মানে হয় না। তাই সেই বন্ধুত্বের উপর নির্ভর করে থাকবেন না। কারন বন্ধুত্ব আজ আছে, কাল নাও থাকতে পারে। সবকিছুই আসা যাওয়ার মধ্যে থাকবে। তাই বলছি পৃথিবীর সবকিছুর সাথে সম্পর্ক বিচ্ছিন করলেও, পরিবারের সাথে সম্পর্ক ভালো রাখুন। কারন বন্ধুত্বের সম্পর্ক শেষ হয়ে গেলে ঠিকই পরিবারের কাছে ফিরতে হবে। বিশ্ব পরিবার দিবসে সকলের কাছে অনুরোধ করবো, পরিবারের সাথে সম্পর্ক ঠিক রাখবেন সবসময়। পরিবারের ভালোর জন্য জীবনে কিছু কাজ বিসর্জন দেওয়া উত্তম। পরিবারের প্রতিটি সদস্যর সাথে ভালো আচরন করুন। সকলের মতামতকে গুরুত্ব দেন। সুখী পরিবার গড়ে উঠুক। আনন্দে পরিবার নিয়ে জীবনযাপন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com