শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম ও তার পরিবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ২.৮ লাখ শিক্ষার্থীর গ্রেডিং অনিশ্চয়তায়। জীবনকে সুন্দর করে গড়ে তোলার নিয়ম-কানুন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বেতন নির্ধারণে নীতিমালা করতে কমিটি। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের পোস্ট দিতে পারবেন না কলেজের ছাত্র–শিক্ষকেরা-ওয়ার্ল্ড খবর২৪.। ভয়াল মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে এবারের উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) বা সমমানের পরীক্ষা হবে না।শিক্ষামন্ত্রী। নারী সম্পর্কে সচেতন হতে হবে সমস্ত জাতীকে-ওয়ার্ল্ড খবর জীববৈচিত্র রক্ষায় জাতিসংঘে ৪ দফা প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর।

জীবনকে সুন্দর করে গড়ে তোলার নিয়ম-কানুন-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী

ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী / ৬৯ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০

জীবনকে সুন্দর করে তোলার কৌশল
।। লাইফ স্টাইল।।
লাইফ স্টাইল-ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী

প্রত্যেকটি মানুষই চায় তার জীবন হউক সুখী ও সুন্দর।
কিন্তু তা আর কত জনের জীবনে সেই সুন্দর জীবনটি আসে।
সুন্দর জীবনের পাওয়ার জন্য প্রতিটি মানুষই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তা কি পাচ্ছে? তা অজানা।

মানুষের সকল কাজই তার জীবনকে ঘিরে, জীবনকে গুছিয়ে সুন্দর করে তোলার প্রত্যাশা সবারই থাকে ।
কিন্তু হতাশা,ব্যর্থতা আর ব্যস্ততা মানুষকে স্বাভাবিক জীবন থেকে অনেক দূরে নিয়ে যায়।
একটু আনন্দ আর খুশিই তার স্বাভাবিক জীবনকে করতে পারে সহজ,সরল ও সুন্দর ।
এক ঘেয়েমী জীবন থেকে মুক্তি পেতে চাইলে ব্যস্ত জীবনে চাই একটু বাড়তি আনন্দ আর অবকাশ ।

আর তাই সুন্দর ও আনন্দময় জীবনের জন্য নিচে সামন্য কিছু নিয়ম-কানুন দেওয়া হলো যা পালন করলে হয়তো বা কিছু উপকার হবে।হতে পারে জীবন একটু সুখময় ও আনন্দময়।
কারণ সুখ ও আনন্দহীন জীবন মৃত-

১.জীবনের হতাশাকে দূরে রাখার চেষ্টা:
*************************
যে কোন কাজে সফল না হলে হতাশ হয়ে পড়া ঠিক নয়, এতে নিজের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হবে । বার বার অসাফল্যের কথা চিন্তা করলে শারীরীক ও মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। হতাশা জীবনে সাফল্য অর্জনের ক্ষেত্রে ও সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহনের ক্ষেত্রে অনেক বড় বাধা ।তাই হতাশাকে দূর করার জন্য নিজেকে ব্যস্থ রাখুন।যে কারণে হতাশাকে তার কারণ খুঁজে বের করে,সমাধান করতে পারলেই হতাশা দূর হয়ে যাবে,জীবনে নেম আসবে আনন্দ ও সুন্দর জীবন।
এক্ষেত্রে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানবার জীবনাচরণ সম্পর্কে পড়াশুনা করতে হবে এবং বুঝতে হবে কোন কিছুই অসম্ভব নয়।
উদাহরণ হিসাবে আমরা বিভিন্ন বিজ্ঞানিদের জীবন,ধর্মিয় ব্যক্তিদের জীবন,মনিষীদের জীবন ও কবি সাহিত্যিকদের জীবনী পড়ুন, তা হলে বুঝতে পারা যাবে, তারা কষ্ট করে জীবন যাপনের মধ্য দিয়ে ইতিহাসের পাতায় তাদের নাম লিখে গেছেন।
তারা শতকষ্টের মধ্যেও জীবনে তাদের হত্যাশা কাজ করেনি।অদ্যম পরিশ্রম করে সাফল্যতা এনেছে তাদের জীবনে।তার জন্য আজ আমরা তার সুফল ভোগ করছি।করতে পারছি তাদের সৃষ্টির তৈরি সকল জিনিষের দ্বারা আনন্দ উল্লাস।
তাই প্রত্যেকেরই ভিতরের কোন না কোন প্রতিভা লুকিয়ে রয়েছে,শুধু তা প্রকাশিত করার জন্য চেষ্টা করতে হবে।তা হলেই জীবনে আসবে আনন্দ।

২.সব সময় নিজেকে হাসি-খুশি রাখার চেষ্টা করতে হবে:
*************************************
যদিও সব সময় হাসি খুশি থাকাটা কোন ভাবেই সম্ভব না।তথাপি থাকার চেষ্টাটা চালিয়ে যেতে হবে।
শত সমস্যার মধ্যে দিয়ে মনের জোরেশোরে হাসি খুশি দিয়ে জয় করতে হবে মনের সব কষ্ট আর বাধা ।
যে কোন বিষয়ে পজিটিভ মনোভাব ব্যক্ত করার চেষ্টা করতে হবে। মন খারাপের বিষয় ভুলে নিজেকে হাসি-খুশি রাখার সাথে সাথে অন্যদের ও হাসি-খুশি আর আনন্দে থাকার পরামর্শ দিতে হবে । তাতে মনের একটা তৃপ্তি আসবে।
তাই প্রাণ খুলে হাসার চেষ্টা করুন আর কষ্টকে দূর করে বিদায় দিন।
এ ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে,
“এক বার না পারিলে দেখ শতবার।”

৩.নিজের প্রতিযত্ন নিন:
**************
যদিও যাকেই প্রশ্ন করা হউক না কেন,সবাই বলবে আমি তো আমার প্রতি যথেষ্ট যত্ন নি।কিন্তু বাস্তবে তা কতটুকু সত্য তা দেখতে হবে।
তাই নিজেকে একটু সময় দিতে হবে। প্রতিদিন অন্তত এমন একটি কাজ করতে হবে, যা নিজের ভালো লাগে । পরিবার, বন্ধু ও আত্নীয়দের থেকে একটু সময় বের করে নেয়ার চেষ্টা করুন নিজের জন্য । নিজের পরিচর্যা করুন, এতে আপনার শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকবে ।




৪.নিয়মিত শারিরীক ব্যায়াম করুন:
**********************
প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম করলে স্বাস্থ্য ভালো থাকে।এই কথাটি সবাই বুঝে, কিন্তু তা কতজনে সেই ব্যায়াম করে থাকে।
বিশেষ করে প্রতিদিন ৪৫ মিনিট হাঁটা শরীরের জন্য ভালো।
আর হাঁটা হলো সবচেয়ে ভালো ব্যয়াম । সম্ভব হলে প্রতিদিন সকালে ও সন্ধ্যায় নিয়ম করে হাঁটুন । এতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি যেমন কমবে, তেমনি নিজেকে দুশ্চিন্তামুক্ত রাখতে সাহায্য করবে । এছাড়া মন ভালো রাখতে ইয়োগা ও করতে পারেন ।

৫.অবসরে ঘুরে বেড়ান:
**************
নগর জীবন থেকে একটু অবসর নিতে ঘুরে আসতে পারেন পরিবার বা বন্ধু বান্ধবের সাথে আপনার পছন্দের যে কোন জায়গায়। তবে সেই ক্ষেত্রে বর্তমানের খুব অসম্ভবই হয়ে পড়েছে।কারণ ভয়াল করোনা ভাইরাসের কারণে।
তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে,পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রেখে ঘুড়ে বেড়ানো সম্ভব।
ঘুরে বেড়ানোর জন্য যে কোন খোলামেলা জায়গা নির্বাচন করতে হবে, এতে মনে আসবে প্রশান্তি আর আনন্দ ।

বর্তমানে এই ব্যস্ত জীবনকে সহজ করে তোলা মোটেই সহজ ব্যাপার না তবে একটু চেষ্টা করলে ক্ষতি কী!
নিজের গতিময় জীবনকে সহজ ও সফল করে তুলতে হয়তো বা প্রথমে একটু কষ্ট হবে,কিন্তু যখন সেই কষ্টটা দূর হয়ে জীবনে বয়ে আসবে আনন্দ, তখন কত যে নিজেকে সুখী মনে হবে তা চিন্তার বাইরে।
তাই সর্বশেষে এই হোক আশা ও ভরসা, সহজ হোক জীবন-যাপন, সুন্দর হোক সবার জীবনের পথচলা ।

ওয়ার্ল্ড খবর২৪.


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com