শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:০৩ অপরাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
মারা গেলেন ফুটবলের জাদুকর ডিয়েগো ম্যারাডোনা আর নয় ভর্তির পরীক্ষা, এবার স্কুলের সব শ্রেণিতে ভর্তি লটারিতে মাধ্যমেই অনুষ্ঠিত হবে। অবশেষে পরাজয় মেনে নেওয়ার প্রক্রিয়া করছেন ট্রাম্প। ২৫ পৌরসভায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা, ভোট ২৮ ডিসেম্বর কুমিল্লায় বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা। ‘শুধু রাজস্ব আদায় নয়, নাগরিক সেবাও বাড়াতে হবে’-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ সিলেটে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ভয়াবহ আগুন-ওয়ার্ল্ড খবর২৪ যে ধর্মেরই হোন না কেন, আমরা সবাই বাঙালি: সজীব ওয়াজেদ।ওয়ার্ল্ড খবর২৪ যুবলীগের ২০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। তীব্র গতিতে ছুটে আসছে তাজমহলের দ্বিগুণ গ্রহাণু, পৃথিবীর কাছ দিয়ে বেরিয়ে যাবে কাল।

ময়নামতি ওয়ার সিমেট্রি (Moynamoti War Simetri), যার আরেক নাম কমনওয়েলথ সমাধি ক্ষেত্র। স্থানীয় লোকদের কাছে এটা ইংরেজদের কবরস্থান হিসেবে পরিচিত

ডা.লরেন্স তীমু বৈরাগী / ৬৮ বার
আপডেট সময় : শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ময়নামতি ওয়ার সিমেট্রি বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় অবস্থিত একটি কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধি।

ময়নামতি ওয়ার সিমেট্রি (Moynamoti War Simetri), যার আরেক নাম কমনওয়েলথ সমাধি ক্ষেত্র। স্থানীয় লোকদের কাছে এটা ইংরেজদের কবরস্থান হিসেবে পরিচিত।

এখানে চিরনিদ্রায় শায়িত রয়েছেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ৭৩৭ সৈন্য। এর মধ্যে ২৪ জন জাপানি যুদ্ধবন্দি এবং ১ জন বেসামরিক ব্যক্তি। স্থানীয়দের ভাষায় একে ইংরেজ কবরস্থান বলা হলেও আসলে এখানে সারিবদ্ধভাবে শায়িত রয়েছেন মুসলিম, খ্রিস্টান, ইহুদি, হিন্দু এবং বৌদ্ধ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত এবং যুদ্ধে আহত হয়ে পরে মারা যাওয়া সাধারণ সৈনিক থেকে ব্রিগেডিয়ার পদমর্যাদার এখানে সমাহিত করা হয়েছে।
কুমিল্লা (Comilla) শহর থেকে ৫ কিলোমিটার পশ্চিমে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসংলগ্ন কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্টের টিপরা বাজার। টিপরা বাজার ও ময়নামতি সাহেবের বাজারের মাঝামাঝি কুমিল্লা-সিলেট সড়কের বাঁয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সাড়ে চার একর পাহাড়ি ভূমিজুড়ে বাংলাদেশে অবস্থিত দ্বিতীয় এ কমনওয়েলথ সমাধি ক্ষেত্র। দেশে অন্য আরেকটি কমনওয়েলথ সৈন্যদের সমাধি রয়েছে চট্টগ্রাম শহরের বাদশা মিয়া চৌধুরী রোডে। সেখানে ৭৫৫ সৈনিকের সমাধি আছে।

ময়নামতি ওয়ার সিমেট্রি বাংলাদেশের কুমিল্লাতে অবস্থিত একটি কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে বার্মায় সংঘটিত যুদ্ধে যে ৪৫০০০ কমনওয়েলথ সৈনিক নিহত হন, তাদের স্মৃতি রক্ষার্থে মায়ানমার (তৎকালীন বার্মা), আসাম, এবং বাংলাদেশে ৯টি রণ সমাধিক্ষেত্র তৈরি করা হয়েছে। বাংলাদেশে দুটি কমনওয়েলথ রণ সমাধিক্ষেত্র আছে, যার একটি কুমিল্লায় এবং অপরটি চট্টগ্রামে অবস্থিত। প্রতিবছর প্রচুর দেশী-বিদেশী দর্শনার্থী যুদ্ধে নিহত সৈন্যদের প্রতি সম্মান জানাতে এ সমাধিক্ষেত্রে আসেন।


ময়নামতি রণ সমাধিক্ষেত্র মূলত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে (১৯০৩-১৯৪৫) নিহত ভারতীয় (তৎকালীন) ও বৃটিশ সৈন্যদের কবরস্থান। এটি ১৯৪৬ সালে তৈরি হয়েছে। কুমিল্লা শহর থেকে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্টের খুব কাছেই এই যুদ্ধ সমাধির অবস্থান। এই সমাধিক্ষেত্রটি Commonwealth War Graves Commission (CWGC) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ও তারাই এ সমাধিক্ষেত্র পরিচালনা করেন। প্রতি বছর নভেম্বর মাসে সকল ধর্মের ধর্মগুরুদের সমন্বয়ে এখানে একটি বার্ষিক প্রার্থনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

সমাধিক্ষেত্রটিতে ৭৩৬টি কবর আছে। এর মধ্যে অধিকাংশ কবর হল সে সময়কার হাসপাতালের মৃত সৈনিকগণের। তাছাড়াও যুদ্ধের পর বিভিন্ন স্থান থেকে কিছু লাশ স্থানান্তর করেও এখানে সমাহিত করা হয়। বাহিনী অনুযায়ী এখানে রয়েছেন ৩ জন নাবিক, ৫৬৭ জন সৈনিক এবং ১৬৬ জন বৈমানিক। সর্বমোট ৭২৩ জন নিহতের পরিচয় জানা সম্ভব হয়েছিল।

ময়নামতি ওয়ার সিমেট্রি, কুমিল্লাতে সমাহিত ব্যক্তিগণ যেসকল দেশের বাহিনীতে কর্মরত ছিলেন, সেগুলো হলোঃ
দেশের নাম সৈন্যসংখ্যা
যুক্তরাজ্য ————৩৫৭
কানাডা ————১২
অস্ট্রেলিয়া————১২
নিউজিল্যান———–০৪
দক্ষিণ আফ্রিকা——–০১
অবিভক্ত ভারত*——-১৭৮
রোডেশিয়া ——–০৩
পূর্ব আফ্রিকা———-৫৬
পশ্চিম আফ্রিকা——–৮৬
বার্মা (বর্তমান মিয়ানমার)-০১
বেলজিয়াম ———-০১
পোল্যান্ড ———–০১
জাপান ———–২৪

★ কখন খোলা থাকে:
ঈদের দুদিন ছাড়া বছরের প্রতিদিনই সকাল ৮ টা থেকে দুপুর ১২টা এবং দুপুর ২টা হতে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ যুদ্ধ সমাধিস্থল সর্ব সাধারণের জন্য উম্মুক্ত থাকে।
তবে এখন করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com